খাঁটি মধু চেনার উপায় – পিঁপড়া পরীক্ষার সঠিক তথ্য (প্রমাণ সহ)

khati-modhu-porikkha, pipra-porikkha

আপনি কি খাঁটি মধু চেনার উপায় সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানতে চান? তাহলে এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে সম্পূর্ণ পড়তে থাকুন এবং নিচে দেওয়া ভিডিওটি দেখে ফেলুন। কারন আজকে আপনাদের সাথে আছি আমি মধু বিশেষজ্ঞ আলামিন। দীর্ঘদিন যাবত মধু নিয়ে গবেষণা করে আমি যে জ্ঞান অর্জন করেছি, সেই জ্ঞানের আলকেই আজকে আলোচনা করবো সমাজে প্রচলিত খাঁটি মধু পরীক্ষা করার যত উপায় আছে তার মধ্যে একটি হচ্ছে পিঁপড়া পরীক্ষা, এই পিঁপড়া পরীক্ষা নিয়েই বিস্তারিত প্রমাণ সহ আলোচনা করবো যাতে করে আপনারা আসল সত্য জানতে পারেন ইনশাআল্লাহ।

মধু কেনার সময় বা মধু কেনার পরে আমরা অনেক ধরনের পরীক্ষা করে থাকি আমাদের ক্রয়কৃত মধু খাঁটি না ভেজাল এটা জানার জন্য। আর এটা জানাও খুব জরুরি। কেনোনা খাঁটি মধুর বদলে যদি আমরা ভুল বসত ভেজাল মধু খেয়ে ফেলি তাহলে হিতে বিপরীত ঘটবে। উপকারের পরিবর্তে অনেক ক্ষতি হতে পারে। এজন্য আমাদের অবশ্যই খাঁটি মধু খেতে হবে। অনেক খোঁজাখুঁজির পরেও যদি আপনার আশেপাশে খাঁটি মধু কোথাও খুজে না পান তাহলে আপনারা নিঃসন্দেহে খাঁটি মধু ডটকম থেকে কিনতে পারবেন বাংলাদেশের যেকোনো জায়গা থেকে (কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে )।

খাঁটি মধু চেনার জন্য পিঁপড়া পরীক্ষা কার্যকারী না অকার্যকারী?

খাঁটি মধু চেনার যত উপায় আছে তার মধ্যে সবচেয়ে হাস্যকর পরীক্ষা হচ্ছে পিঁপড়া পরীক্ষা। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, আমি নিজেও একসময় পিঁপড়া পরীক্ষা তে বিশ্বাসী ছিলাম। মধুর বিজনেস শুরু করার পূর্বে আমি যখন মধু কিনতাম নিজে খাওয়ার জন্য, তখন আমি নিজেও অনেক পরীক্ষা করতাম যেমনঃ আগুন পরীক্ষা, পানি পরীক্ষা, ফ্রিজিং পরীক্ষা, চুন পরীক্ষা ও পিঁপড়া পরীক্ষা সহ বিভিন্ন পরীক্ষা। এবং এই পরীক্ষা করার মাধ্যমে আমি খাঁটি মধু এবং ভেজাল মধুর মধ্যে পার্থক্য করার চেষ্টা করতাম।

কিন্তু কখনো মনে হতো মধু খাঁটি আবার কখনো মনে হতো মধু ভেজাল। আর এই মধু চেনার উপায় গুলো আমি কোথায় পেয়েছিলাম জানেন? এই উপায় গুলো আমি আমার আশে পাশের মানুষজনদের কাছ থেকে শুনে শুনে শিখেছিলাম আর কিছু শিখেছিলাম গুগল অথবা ইউটিউব থেকে। কিন্তু বড় আশ্চার্যের বিষয় হচ্ছে, আমি কখনো জানতেই চাইনি আমি যেই পরীক্ষা গুলোর মাধ্যমে খাঁটি মধু বা ভেজাল মধু যাচাই করছি, আদৌ সেই পরীক্ষা গুলোই সঠিক কি না? বা বিজ্ঞান সম্মত কিনা?

আমি অনেকদিন যাবত এই প্রচলিত পরীক্ষা গুলো নিয়ে গবেষণা করেছি। এবং গবেষণা করে অবশেষে বুঝতে পারলাম, আমাদের মাঝে প্রচলিত যত ঘরোয়া পরীক্ষা আছে খাঁটি মধু চেনার উপায় নিয়ে তা সবই কুসংস্কর বা ভুল পরীক্ষা। সুতরাং এই পিঁপড়া পরীক্ষা দিয়েও মধু খাঁটি বা ভেজাল কিছুই বোঝা যাবে না। বিস্তারিত প্রমাণ সহ জানতে নিচের ভিডিওটি দেখুন।

ভিডিওঃ পিপড়া পরীক্ষা – মধু বিশেষজ্ঞ আলামিন

source: https://www.youtube.com/channel/UC7ekgfRfmDvw0UD9HrmtRXQ

উপসংহার

আপনারা ভাবতে পারেন, এই ছোট্ট একটি কথা (পিঁপড়া পরীক্ষার মাধ্যমে খাঁটি মধু চেনা যায় না) বলার জন্য আমি এতো লম্বা একটি আর্টিকেল লিখলাম কি জন্য? আসলে লিখলাম কি জন্য এটা আমিই ভালো জানি। কারন আমরা বাংলাদেশীরা এমন প্রকৃতির যে, কোনো একটি তথ্য যদি এক কথায় প্রকাশ করা হয়, তখন বলবে যে প্রমাণ চাই প্রমাণ চাই। আবার যদি ওই ছোট্ট একটি কথা বিস্তারিত ব্যাখ্যা করতে যাই, তখন বলবে এতো প্যাঁচাল পাড়েন কেনো?

যাইহোক, এখানে আরেকটি প্রশ্ন আসতে পারে। তা হচ্ছে- পিঁপড়া পরীক্ষা সঠিক না এটা জেনে আমাদের লাভ কি? এটা জেনে আপনাদের অনেক লাভ আছে, যদি আপনার বুঝতে পারেন। আমি এখানে কয়েকটি উদাহরণ দিচ্ছিঃ

  • ধরুন আপনি অনেক কষ্ট করে সত্যিই খাঁটি মধু কিনলেন এবং আপনি বিশ্বাস করেন পিঁপড়া খাঁটি মধু খায় না, যদি খায় তাহলে ভেজাল। এরপর আপনি মধু বাসাই এনে আপনার ওই মধু খাঁটি না ভেজাল এটা জানার জন্য পিঁপড়া দিয়ে পরীক্ষা শুরু করলেন। এবং দেখলেন, পিঁপড়া মধু খাচ্ছে। তখন আপনি ভাব্বেন, আপনার বিশ্বাস আর সারাদিনের এতো পরিশ্রম সবই বৃথা হয়ে গেলো! কিন্তু আপনি যদি জানতেন পিঁপড়া পরীক্ষা সঠিক না, তাহলে কিন্তু আপনি ওই খাঁটি মধু নিশ্চিন্তে খেয়ে অনেক উপকৃত হতে পারতেন।
  • যেহেতু পিঁপড়া খাঁটি মধু এবং ভেজাল মধু দুই প্রকার মধুই খায়, সেহেতু আপনারা খাঁটি ব্যবসায়ী এবং ভেজাল ব্যবসায়ীর মধ্যে পার্থক্য করতে পারবেন না। এতে অনেক জটিল সমস্যার সৃষ্টি হয়। অনেক কাছের প্রিয় মানুষকে হয়তো আপনি ভুল বসত তাকে ঘৃণা করতে শুরু করবেন। এড়িয়ে চলতে শুরু করবেন। ইত্যাদি।

যাইহোক, হয়তো আপনাদের অনেক সময় নষ্ট করে ফেললাম অথবা কিছুটা হলেও উপকার করলাম। যেটাই করি না কেনো, অবশ্যই নিচে কমেন্ট বক্সে আপনাদের মূল্যবান মতামত জানাতে ভুলবেন না যেনো!

আর যদি খাঁটি মধু প্রয়োজন হয়, তাহলে এখানে অর্ডার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *